সোয়াইবা নামের অর্থ কি | বাংলা আরবি ইসলামিক অর্থ জানুন

প্রিয় পাঠক -পাঠিকা বন্ধু, আপনারা যারা ইন্টারনেটের সাহায্যে সোয়াইবা নামের অর্থ কি কিংবা সোয়াইবা নামের বাংলা অর্থ কি কিংবা Suyaiba namer ortho ki বলে খুজতেছেন এবং ইন্টারনেটের মাধ্যমে জানতে চাইতেছেন সোয়াইবা কি ইসলামিক নাম তাদের জন্য বলবো এই পোস্টটি আপনাদের জন্য করা হয়েছে। অনেককেই তার নিজের নামের সঠিক অর্থ না জানার কারণে প্রায়ই বিভ্রান্তিতে পড়তে হয়। পুরো পোস্টটা পড়লে আশা করি সোয়াইবা নামের সঠিক বাংলা আরবী ইসলামিক অর্থ ভালোভাবে জানতে পারবেন।

নিজের নাম এমন একটি বিষয়বস্তু, যা আপনাকে সারাজীবন ধরে প্রতিনিধিত্ব করবে। জীবনে চলার পথে সুন্দর নাম যে কাউকেই আত্মবিশ্বাসী করে তোলে। ইসলাম ধর্ম সহ জাগতিক সকল ধর্মেই বাচ্চার সুন্দর সুন্দর নাম রাখার ব্যাপারে গুরুত্বারোপ দিয়েছে। তাই নবজাত শিশুর নামকরণের আগে নামের সঠিক অর্থ জানা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

 “সোয়াইবা” সুন্দর এই নামের ব্যবহার বাংলাদেশে দিনদিন বেড়েই চলেছে, শুধু বাংলাদেশেই নয় সম্প্রতি সোয়াইবা নামটির ব্যবহার বহির্বিশ্বেও অনেক বাড়ছে।  তাই আপনার কিংবা আপনার আত্মীয় স্বজনের নবজাতক সন্তানের সুন্দর নাম হিসেবে সোয়াইবা (Suyaiba) নামটি অবশ্যই পছন্দের তালিকার শীর্ষেস্থানে থাকবে বলে আশা করাই যায়।

সোয়াইবা নামের অর্থ কি এই পোষ্টটি পড়লে যেসব প্রশ্নের উত্তর পাবেন

  • Suyaiba নামের অর্থ
  • সোয়াইবা নামের অর্থ কি?
  • সোয়াইবা নামের আরবি অর্থ কি?
  • সোয়াইবা নামের ইসলামিক অর্থ কি?
  • সোয়াইবা নামের বাংলা অর্থ কি?
  • Suyaiba name meaning
  • Suyaiba namer ortho ki?
  • Suwaiba namer ortho ki?
  • Suyaiba namer bangla ortho ki?
  • Suyaiba name meaning in bengali
  • Sowaiba name meaning in bengali
সোয়াইবা নামের অর্থ কি
সোয়াইবা নামের অর্থ কি | বাংলা আরবি ইসলামিক অর্থ জানুন

বিভিন্ন ভাষায় সোয়াইবা নামের বানান

আপনাদের মাঝে অনেকেই তার নিজের নামের সঠিক ইংরেজি এবং আরবী বানান নিয়ে দ্বিধাদন্দে থাকেন। তাই আমরা সোয়াইবা নামের সঠিক ইংরেজি এবং আরবী বানান উল্লেখ করে দিলাম।

ইংরেজিতে সোয়াইবা নামের বানান হলো – SUYAIBA / SUWAIBA

আরবীতে সোয়াইবা নামের বানান হলো – ثوبیه

হিন্দিতে সোয়াইবা নামের বানান হলো – सुयैबा

উর্দুতে সোয়াইবা নামের বানান হলো  –  ثویبہ

আরো পড়ুনঃ   সুনাইনা নামের অর্থ কি | সঠিক বাংলা আরবি ইসলামিক অর্থ জানুন

সুন্দর নাম রাখার ব্যাপারে হাদিস

নবজাতক সন্তান জন্ম হবার পর তার একটি অর্থবহ সুন্দর ইসলামীক নাম রাখা প্রত্যেক পিতামাতার কর্তব্য। এই কর্তব্যে যদি কোন অভিভাবক কোনো ধরনের অবহেলা করেন তবে তার জন্য আল্লাহ তায়ালার কাছে জবাবদিহিতা করতে হবে।

হাদীস শরীফে এসেছেঃ 

حَدَّثَنَا عَمْرُو بْنُ عَوْنٍ، قَالَ: أَخْبَرَنَا ح وحَدَّثَنَا مُسَدَّدٌ، قَالَ: حَدَّثَنَا هُشَيْمٌ، عَنْ دَاوُدَ بْنِ عَمْرٍو، عَنْ عَبْدِ اللَّهِ بْنِ أَبِي زَكَرِيَّا، عَنْ أَبِي الدَّرْدَاءِ، قَالَ: قَالَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ: إِنَّكُمْ تُدْعَوْنَ يَوْمَ الْقِيَامَةِ بِأَسْمَائِكُمْ، وَأَسْمَاءِ آبَائِكُمْ، فَأَحْسِنُوا أَسْمَاءَكُمْ

হযরত আবূ দারদা (রাঃ) এর সূত্রে বর্ণিত। তিনি বলেছেন, রাসূলুল্লাহ (সঃ) বলেছেনঃ কিয়ামাতের দিন তোমাদেরকে, তোমাদের ও তোমাদের পিতাদের নাম ধরে ডাকা হবে। তাই তোমরা তোমাদের সুন্দর নামকরণ করো। 

আহমাদ ২১৬৯৩, আবূ দাঊদ ৪৯৪৮, য‘ঈফ আত্ তারগীব ওয়াত্ তারহীব ১২২৭, য‘ঈফুল জামি‘ ২০৩৬, সহীহ ইবনু হিব্বান ৫৮১৮, শু‘আবুল ঈমান ৮৬৩৩, সুনানুদ্ দারিমী ২৬৯৪, হিলইয়াতুল আওলিয়া ৫/১৫২, সুনানুল কুবরা লিল বায়হাক্বী ১৯৭৮৬।

ত্ববারানীর এক বর্ণনায় রয়েছে,

فِىْ غَيْرِه أَوْ يُقَالُ تُدْعٰى طَائِفَةٌ بِأَسْمَاءِ الْآبَاءِ وَطَائِفَةٌ بِأَسْمَاءِ الْأُمَّهَاتِ (فَأَحْسِنُوا أَسْمَاءَكُمْ) أَىْ أَسْمَاءَ أَوْلَادِكُمْ وَأَقَارِبِكُمْ وَخَدَمِكُمْ

অর্থাৎ একদলকে আহবান করা হবে পিতাদের নামে এক দলকে মাতাদের নামে। অতএব তোমরা তোমাদের (সন্তানদের, আত্মীয়দের, চাকর-চাকরাণীদের) সুন্দর ও উত্তম নাম রাখ।

হযরত আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রাঃ). ও  মা আয়েশা (রাঃ) থেকে বর্ণিত, রাসূল (সঃ) বলেছেন-

من حق الولد على الوالد أن يحسن اسمه ويحسن أدبه.

অর্থ : সন্তানের সুন্দর নাম রাখা ও তার উত্তম তারবিয়াতের ব্যবস্থা করা বাবার উপর সন্তানের হক  – মুসনাদে বাযযার (আলবাহরুয যাখখার), হাদীস ৮৫৪০

সোয়াইবা কি ইসলামিক নাম?

সোয়াইবা (ثوبیه) একটি আরবী শব্দ। সোয়াইবা (ثوبیه) একটি ইনডাইরেক্ট কুরআনিক ইসলামিক নাম। ইসলামিক বিশ্বে অসংখ্য শিশুদের নাম সোয়াইবা (SUYAIBA) রাখা হয়েছে। সোয়াইবা (ثوبیه) নামটি বর্তমানে মুসলিম বিশ্বে খুবই পরিচিত এবং জনপ্রিয় একটি নাম।

আরবি সাহিত্য ঘাটলে হয়ত সোয়াইবা (ثوبیه) (SUYAIBA) নামটি বেশ কয়েকবার পাওয়া যাবে।  সোয়াইবা (ثوبیه) নামের এর সমার্থক শব্দ সরাসরি পবিত্র কুরআন শরীফের সুরা আল-ইমরানের ১৪৮ নং আয়াতে উল্লেখ রয়েছে। তাই সোয়াইবা (ثوبیه) একটি ইনডাইরেক্ট কুরআনিক ইসলামিক নাম।

সোয়াইবা নামের বাংলা অর্থ কি? [ SUYAIBA namer bangla ortho ki ]

সোয়াইবা (ثوبیه) একটি আরবী শব্দ। আরবী ভাষা অনুযায়ী সোয়াইবা নামের সঠিক বাংলা অর্থ হলো পুরষ্কার।  এছাড়াও সোয়াইবা (ثوبیه) নামের অন্য একটি ইসলামিক অর্থ হচ্ছে প্রতিদান। ইসলামের ইতিহাসে সোয়াইবা (SUYAIBA) নামটি বেশ তাৎপর্যের সাথে বিবেচনা করা হয়।

সোয়াইবা নামের ইসলামিক অর্থ কি?

সোয়াইবা (ثوبیه) একটি আরবী শব্দ। সোয়াইবা (SUYAIBA) নামটি বর্তমানে বিশ্বে খুবই পরিচিত, মাসহুর এবং জনপ্রিয় একটি নাম।

আরবী ভাষা অনুযায়ী সোয়াইবা নামের সঠিক আক্ষরিক অর্থ হলো পুরষ্কার।  এছাড়াও সোয়াইবা (ثوبیه) নামের অন্য একটি ইসলামিক অর্থ হচ্ছে প্রতিদান।

আরবি সাহিত্য ঘাটলে হয়ত সোয়াইবা (ثوبیه) (SUYAIBA) নামটি বেশ কয়েকবার পাওয়া যাবে।  সোয়াইবা (ثوبیه) নামের এর সমার্থক শব্দ সরাসরি পবিত্র কুরআন শরীফের সুরা আল-ইমরানের ১৪৮ নং আয়াতে  উল্লেখ রয়েছে। তাই সোয়াইবা (ثوبیه) একটি ইনডাইরেক্ট কুরআনিক ইসলামিক নাম।

সোয়াইবা  (SUWAIBA) নামের আরো কোনো অর্থ আপনাদের জানা থাকলে অবশ্যই আমাদের কমেন্ট করে জানাবেন। আপনার তথ্য অনুযায়ী আমরা পোষ্টি আপডেট করে দিবো। আমাদের তথ্যে কোনো ত্রুটি পেলে সেটাও কমেন্ট করে জানাবেন।

সোয়াইবা (SUYAIBA) কোন লিঙ্গের নাম?

সোয়াইবা (ثوبیه) নামটি স্ত্রী লিঙ্গের সুন্দর নাম রাখার ক্ষেত্রে বিশেষ উপযোগী। এই নামটি সাধারণত মেয়ে শিশুদের ক্ষেত্রে বিশেষভাবে রাখা হয়। সোয়াইবা Suyaiba (ثوبیه) নামটি একটি আধুনিক নামও বটে। এই নামটি সাধারণত নরজাতক মেয়েদের সুন্দর নাম রাখার ক্ষেত্রে বিশেষ উপযোগী।

সুয়াইবা নামে বিখ্যাত কিছু ব্যাক্তিত্য

Suwaiba fathima: Suyaiba fathima is a famous Indian actor and model.

আপনারা সোয়াইবা (ثوبیه) নামে আরো কোনো বিখ্যাত ব্যাক্তিত্তের সন্ধান পেলে আমাদের কমেন্ট করে জানাবেন। আপনার তথ্য অনুযায়ী আমরা পোষ্টি আপডেট করে দিবো।

আরো পড়ুনঃ   অদ্রিজা নামের অর্থ কি | সঠিক অর্থ জানলে অবাক হবেন

কেনো সোয়াইবা (SUWAIBA) নামটি সিলেক্ট করবেন?

ভালো ও সুন্দর নাম রাখা প্রত্যেক পিতা-মাতার সর্বপ্রথম দায়িত্ব। এছাড়া আমরা এভাবেও বলতে পারি যে, প্রত্যেক পিতা-মাতার উপর তার সন্তানের সর্বপ্রথম হক হচ্ছে, তার জন্য সুন্দর একটা নাম নির্বাচন করা। 

সুয়াইবা (ثوبیه) নামটি সিলেক্ট করার এবং রাখার অন্যতম প্রধান কারণ হতে পারে এটি খুবই ইউনিক নাম। সাধারণত এ নামের মেয়ে তেমন একটা খুঁজে পাওয়া যায়না। এমন একটি ইউনিক বা আনকমন নাম আপনার সন্তানের জীবনে বেশ ভালোভাবে ইতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে বলে আমাদের বিশ্বাস।

সোয়াইবা দিয়ে শিশুর জন্য সুন্দর কিছু পূর্ণনাম সাজেশন

আশা করি সোয়াইবা নামটি আপনাদের পছন্দ হয়েছে, তাই যদি আপনি আপনার শিশুর জন্য সোয়াইবা (SUYAIBA) নামটি রাখতে চান তাহলে নিচের সাজেশন লিস্ট থেকে আপনার পছন্দসই ভালো নামটি বেছে নিতে পারেন।

  • হুযায়ফা জাহান সোয়াইবা
  • সোয়াইবা ইসলাম সোয়াইবা
  • সোয়াইবা মাহামুদ
  • সোয়াইবা রাহিয়া
  • সোয়াইবা তাসরিন
  • ইফতিহা জামান সোয়াইবা
  • সোয়াইবা আরশি
  • সোয়াইবা জান্নাত তাজরী
  • ইশাল ইসলাম সোয়াইবা
  • সোয়াইবা ইসরাম রাইদা
  • খান জান্নাতুল সোয়াইবা
  • সোয়াইবা বিনতে জামিল
  • মেহেজাবিন সোয়াইবা
  • অদ্রিজা সোয়াইবা
  • সোয়াইবা রিদি
  • সোয়াইবা মিম
  • সোয়াইবা রুহি
  • সোয়াইবা আফসানা সিয়া
  • ইশাল সোয়াইবা
  • সোয়াইবা সুলতানা সেহরিশ
  • সামিহা সোয়াইবা
  • আজিমুশ্বান সোয়াইবা
  • সুনাইরা আহমদ সোয়াইবা
  • সুয়াইবা আক্তার রুবাইয়া
  • আহনাফ কায়সার সোয়াইবা
  • নওরিন সুলতানা সোয়াইবা
  • সোয়াইবা তাবাসসুম
  • রাইনা আক্তার সোয়াইবা

মানুষ যে ধর্মেরই হোক না কেন প্রত্যেক ধর্মেই নবজাতক সন্তানের অর্থবহ সুন্দর একটা নাম রাখার ব্যাপারে অনেক গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। অর্থবহ সুন্দর, ইসলামিক নাম মানুষের ইহকাল ও পরকাল কে অবশ্যই প্রভাবিত করবে। এছাড়াও ইসলামি শরীয়তে নবজাতক বাচ্চাদের অর্থবহ সুন্দর নাম রাখার ব্যাপারে  অনেক গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। আমরা অনেক সময় নামের সঠিক অর্থ সঠিকভাবে না জেনেই নবজাতক সন্তানের নাম রেখে দিই। যা নিয়ে সন্তানকে পরবর্তীতে বিভিন্ন অনাকাংখিত পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হয়। তাই সন্তান জন্মের পর নবজাতক ছেলে-মেয়ের জন্য নাম রাখার পূর্বে অবশ্যই নামের সঠিক অর্থ জেনে নেওয়া উচিত। আশা করি সোয়াইবা নামের অর্থ কি এই পোষ্টটি সামনে যারা বাবা হতে চলেছেন তাদেরকে কিছুটা হলেও সাহায্য করবে বলে আমার বিশ্বাস।

Last work from us

Leave a Reply

Your email address will not be published.